দেশের ১৩টি শতবর্ষী সরকারি কলেজ হবে সেন্টার অব এক্সিলেন্স বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি। ২৭ ডিসেম্বর শুক্রবার রাজশাহী কলেজে এইচএসসি অ্যালামনাই অনুষ্ঠান উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার মানের দিকে নজর দিতে হবে। শিক্ষকদের পেছনে বিনিযোগ করতে হবে। শিক্ষকদের গবেষনার কাজে মনোযোগি হতে হবে। আগামীর বিশে^র চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মানব সম্পদের উন্নয়ন জরুরী। এ জন্য সরকার সব ধরণের সহযোগিতা দেবে।

প্রচীনতম এ কলেজে ১০ তলা ছাত্রী নিবাস ও প্রশাসনিক ভবন নির্মাণসহ সকল সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে আশ্বস দেন মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব কেরন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান। বক্তব্য রাখেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি, তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি, নাটোর-৪ আসনের এমপি আব্দুল কুদ্দুস, রাজশাহী-৩ আসনের এমপি আয়েন উদ্দিন, সংরক্ষিত আসনের এমপি আদিবা আনজুম মিতা।

দুইদিন ব্যাপী এই অ্যালামনাই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উদ্বোধনী দিনে বেলা ১১টার দিকে ক্যাম্পাস থেকে র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীতে প্রতিটি ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। দেশের সর্বপ্রথম এইচএসসি অ্যালামনাই এবং সর্ববৃহৎ অ্যালামনাই এটি বলে দাবি করেছেন আয়োজকরা।

রাজশাহী কলেজে এইচএসসি অ্যালামনাই পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নিবন্ধন করেন নয় হাজার সাবেক শিক্ষার্থী। এর মধ্যে রয়েছেন ১৯৪৭ থেকে ২০২১ সালের ব্যাচ। ১৯৪৭ থেকে ১৯৬০ সালের ব্যাচের ৪৩ জন নিবন্ধন করেন। যার মধ্যে ৪৭ সালের একজন। ১৮৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এই কলেজটি।

Leave a Reply