সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসকে সাময়িক বরখাস্ত

0
200
Spread the love

ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরালের পর সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের আলোচিত সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আইন মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে। একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরের আদেশ দেওয়া হয়।

ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগের অপরাধে সরকারি কর্মচারী বিধির (শৃঙ্খলা ও আপিল)-২০১৮ সালের আইনের ১২ ধারা ৩(খ) ও ৩ (ঘ) অনুযায়ী সুব্রতর বিরুদ্ধে এ ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়। রাষ্ট্রপতির পক্ষে ভারপ্রাপ্ত আইন সচিব মো. গোলাম সারওয়ার আদেশে স্বাক্ষর করেন। ওই আদেশের কপিটি প্রজ্ঞাপন আকারে মন্ত্রণালয়ের বিচার শাখা-৬ সিনিয়র সহকারী সচিব মো. আনোয়ারুল হক স্বাক্ষর করেন। সিরাজগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মো. মঞ্জুরুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সাময়িক বরখাস্ত ও মামলা চলাকালীন সময়ে সুব্রত সিরাজগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে সংযুক্ত থাকবেন বলেও ওই আদেশে বলা হয়েছে।

এদিকে, জেলা রেজিস্ট্রারের তদন্তের পর সুব্রত দাসের সহযোগী তিন কর্মচারী মহরার আব্দুস সালাম, নকলনবিশ সুমন আহম্মেদ ও অফিস সহায়ক আনিছুর রহমানকে গত রবিবার সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
 এর আগে ২০১৬ ও ২০১৮ সালে চট্টগ্রাম জেলার জোড়ারগঞ্জ ও মাগুড়ায় থাকাকালীন ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ দু’বার সাময়িক বরখাস্তসহ বিভাগীয় মামলা হয় সুব্রতর বিরুদ্ধে।

উল্লেখ্য, জমি দাতা ও দলিল গ্রহীতাদের প্যাঁচে ফেলে অবাধে ঘুষ বাণিজ্য, দালাল চক্রের দৌরাত্ম্য বাড়াতে সহায়তা, জমির প্রকৃত বাজার মূল্য কম দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি, কতিপয় অসাধু দলিল লেখকের সঙ্গে ঘুষের ভাগবাটোয়ারা, ঊর্ধ্বতনদের অনুমতি ছাড়া দলিল সম্পাদন বন্ধ রেখে অফিসে সংবাদ সম্মেলন ও গাছ বিক্রির অভিযোগে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ চার জনের বিরুদ্ধে তদন্ত হয়। তদন্তে তারা দোষী সাব্যস্ত হন।

এর আগে শাহজাদপুর উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রারসহ তার কার্যালয়ের কিছু কর্মচারীর ঘুষ নেওয়ার একটি ভিডিও গত ১৫ আগস্ট ফেসবুকে পোস্ট করেন সোহেল রানা নামের এক ব্যক্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here