সাকিবের বিসিবি’র চুক্তিও বাতিল হচ্ছে

0
249
Spread the love

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে প্রত্যাখ্যান করলেও বিষয়টি আইসিসি কিংবা বিসিবিকে না জানানোর কারণে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে ২ বছরের জন্য সাকিব আল হাসানকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। এর পরপরই সাকিব মর্যাদাপূর্ণ মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি) এর ক্রিকেট কমিটি থেকেও পদত্যাগ করেছেন।

তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গেও তার চুক্তি বাতিল হচ্ছে কি না এ বিষয় এখনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বিসিবি। বিসিবির শীর্ষ কর্তারা জানিয়েছেন নিয়ম অনুযায়ী বিসিবির সঙ্গে সাকিবের চুক্তি বাতিল হওয়ারই কথা।

সাকিবের নিষেধাজ্ঞায় আইসিসি সাফ জানিয়ে দিয়েছে- নিষিদ্ধ থাকার কোন ধরনের প্রতিযোগিতামুলক ক্রিকেটীয় কর্মকান্ডে সাকিব জড়িত থাকতে পারবেন না। আর তাই বিসিবির সঙ্গে সাকিবের এই চুক্তি তো নিষেধাজ্ঞার ঘোষণার পর থেকেই স্বয়ংক্রিয়ভাবেই বাতিল হয়ে যাওয়ার কথা।

এই প্রসঙ্গে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন সুজন গণমাধ্যমে জানান-এটা অবশ্যই বাতিল হওয়ার কথা। যে নিয়ম আছে, সেই অনুযায়ী এটা ২৯ অক্টোবর থেকেই বাতিল হওয়ার কথা। তবে বোর্ড এখনো এই বিষয়ে যেহেতু কোন সিদ্ধান্ত জানায়নি, তাই এটা এখনই বাতিল হয়ে গেছে-এমনটা আমি বলতে পারি না। একই কথা জানিয়েছেন বিসিবির টিম অপারেশন্সের চেয়ারম্যান আকরাম খানও।তিনি জানান-নিয়ম তো তাই জানাচ্ছে যে সাকিবের সঙ্গে বিসিবির চুক্তিটা আর থাকছে না।

এছাড়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সঙ্গে আলোচনা না করেই টেলিকম কোম্পানির ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন সাকিব আল হাসান। বিষয়টি নজরে এসেছে বিসিবির। তাই খুব দ্রুতই সাকিবকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠাতে যাচ্ছে তারা। আইনি ব্যবস্থাও নিতে পারে বিসিবি।

জানা গেছে, বিসিবি চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের সংখ্যা এখন ১৮ জনের। সাকিব শীর্ষ গ্রেডের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের একজন। চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার হিসেবে তিনি বিসিবি থেকে মাসে সর্বোচ্চ চার লাখ টাকা করে বেতন পান।

আবার ক্রিকেটারদের সঙ্গে বিসিবির এই চুক্তি শেষ হচ্ছে ডিসেম্বরে। সামনের বছরের জানুয়ারিতে ক্রিকেটারদের সঙ্গে নতুন করে চুক্তি হবে। নতুন সেই চুক্তিতেও নিশ্চিতভাবেই বাদ যাচ্ছেন বিশ্ব সেরা এই অলরাউন্ডার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here