যে কেউ একজন ঘোষণা করলেই চেয়ারম্যান হওয়া যায় না-জিএম কাদের

0
214
Spread the love

রওশন এরশাদকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেছেন, ‘বাহ্যিকভাবে এটা করতে পারে না। যে কেউ একজন ঘোষণা করলেই হয় না।’

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) পার্টির সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদের গুলশানের বাসভবনে আয়োজিত রওশন এরশাদের সংবাদ সম্মেলনের প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে জিএম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এই পদটি শূন্য ছিল। এরপর বিরোধীদলীয় নেতার পদটি পূরণ করার দরকার ছিল। বিরোধীদলীয় নেতার পদটি নিয়ে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছিল, আর যেহেতু আগামী ৮ তারিখে সংসদ শুরু হচ্ছে তার আগেই আমাদের সিদ্ধান্তের প্রয়োজন ছিল। এ নিয়ে আমাদের প্রেসিডিয়াম মিটিংয়েও সর্ব সম্মতি ছিল যেন আমি বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্ব নেই।

জিএম কাদের বলেন, পার্লামেন্টে আমাদের ২৫ এমপি আছে, আমি সবার কাছ থেকে মতামত নিয়েছি, এটা নিয়ে সভা করেছি। সেই সভায় ১৫ জন আমাকে সরাসরি সমর্থন জানিয়েছেন। গঠনতন্ত্র মোতাবেক বিরোধীদলীয় নেতা হতে আমি স্পিকারের কাছে চিঠি পাঠিয়েছি।

এ সময় তিনি দলীয় গঠনতন্ত্রের বিভিন্ন ধারা তুলে ধরে বলেন, আমাদের সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদও এভাবে নেতা নির্বাচন করেছিলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে জিএম কাদের বলেন, ‘একটি সংবাদ সম্মেলনের খবর শুনেছি। বিষদভাবে না জেনে এখনই কিছু বলতে চাচ্ছি না। ৬ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রিফ করা হবে।’

পার্লামেন্টারি বোর্ড গঠন নিয়ে উত্থাপিত অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এরশাদ সাহেব জীবিত থাকা অবস্থায় যেভাবে বোর্ড গঠন করেছিলেন, সেভাবেই করা হয়েছে। শুধু একজন সদস্য নিজে থেকে সরে যেতে চাইলে তার স্থানে কাজী ফিরোজ রশীদকে যুক্ত করেছি। জাতীয় নির্বাচন ও একটি উপ-নির্বাচনে একই বোর্ড নাও হতে পারে। এখানে আঞ্চলিকতার প্রাধান্য থাকতেই পারে। পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ীই আমি দায়িত্ব পালন করছি।’

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশালে রওশন এরশাদের বাসভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব ঘোষণা দেন পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। এ সময় রওশন এরশাদ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here