যুক্তরাষ্ট্রে নভেল করোনাভাইরাসে একদিনে রেকর্ড সংখ্যক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৪ হাজার ৪৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে তো বটেই, পুরো বিশ্বে একদিনে এত মৃত্যুর ঘটনা নজিরবিহীন।

বার্তা সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা নির্ধারণের হিসাবে পরিবর্তন আনা হয়েছে। যার কারণে একদিনে এত বিপুল সংখ্যক মানুষের মৃত্যুর বিষয়টি রেকর্ডভুক্ত হয়েছে।

নতুন হিসাবে ‘সম্ভাব্য মৃত্যুর’ বিষয়টি আনা হয়েছে। অর্থাৎ কোনো ব্যক্তির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে মৃত্যু হলে তাকেও মোট মৃতের হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

কয়েকদিন আগে নিউইয়র্ক শহর কর্তৃপক্ষ ৩ হাজার ৭৭৮টি ‘সম্ভাব্য মৃত্যুর ঘটনা’ মোট মৃত্যুর হিসাবের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রে সবমিলিয়ে মৃতের সংখ্যা ৩৩ হাজার ছাড়িয়েছে। ‘সম্ভাব্য মৃত্যু’ বাদ দিয়ে জন’স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ২৫৭ জনের। এটিও একদিনে রেকর্ড মৃত্যুর ঘটনা।

গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ২৪২ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৫৩ জনে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যার হিসেবে যে কোনো দেশকে ছাড়িয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির নিউইয়র্ক রাজ্যে প্রাদুর্ভাব ছড়িয়েছে বেশি। যুক্তরাষ্ট্রে মোট মৃত্যুর অর্ধেকেই হয়েছে শুধু এই রাজ্যেই।

Leave a Reply