prothombarta24

ভারতে থাকলে তার পক্ষে নোবেল জয় সম্ভব ছিল না। এমনটাই মনে করেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়।

রোববার জয়পুর সাহিত্য উৎসবে উপস্থিত হয়ে তিনি এ মন্তব‌্য করেন।

সোমবার ভারতীয় সংবাদমাধ‌্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়, সাহিত্য উৎসবে তাকে (অভিজিৎ) প্রশ্ন করা হয়, ভারতে থাকলে কী এত বড় সম্মান অর্জন করতে পারতেন? জবাবে নোবেলজয়ী বলেন, ‘না পারতাম না।’

নিজের উত্তরের পক্ষে যুক্তি দিয়ে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ভারতে যোগ্যতার অভাব নেই। তবে, সঠিক কার্য প্রক্রিয়া দরকার। একার পক্ষে সমস্ত কাজ সব সময় করা সম্ভব হয় না। সকলের সঙ্গে কাজ করলে অনেক সুবিধা হয়।’

২০১৯ সালে অর্থনীতিতে নোবেল পান অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। দূরীকরণের জন্য বিরল গবেষণা করে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যৌথভাবে এই পুরস্কার পেয়েছেন তার স্ত্রী এস্থার ডুফলো ও মাইকেল ক্রেমার। গত দুই দশক ধরে দারিদ্র্য দূরীকরণের জন্য নিরলস গবেষণা করছেন তারা। তাদের পরীক্ষাভিত্তিক পদ্ধতির জন্য অনেক পরিবর্তন এসেছে উন্নয়নের অর্থনীতিতে। এর মাধ্যমে গবেষণার নতুন-নতুন দিকও খুলে গেছে।

১৯৬১ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পড়শোনাও কলকাতায়। সাউথ পয়েন্ট স্কুল শেষে প্রেসিডেন্সি কলেজে অর্থনীতি নিয়ে ভর্তি হন। সেখান থেকে ১৯৮১ সালে অর্থনীতিতে বিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। পরে ১৯৮৩ সালে দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে এমএ পাস করেন। ১৯৮৮ সালে পিইচডি করার জন্য ভর্তি হন ইংল্যান্ডের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে। বর্তমানে তিনি আমেরিকার বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান এমআইটির ফুড ফাউন্ডেশনের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

Leave a Reply