prothombarta24

শোবিজ অঙ্গনে যুক্ত হওয়ার পর একাধিকবার বিয়ে নিয়ে কথা বলতে হয়েছে পরীমনিকে। এরমধ্যেই তিনি জানিয়ে ছিলেন বেশ ধুমধাম করে বিয়ে করার ইচ্ছের কথা। কিন্তু সেই বিয়েটাই পরী করলেন লুকিয়ে। যিনি প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে খোলামেলা কথা বলতে অভ্যস্থ তিনি কেন লুকিয়ে বিয়ে করতে গেলেন? পরীর জবাব বেশ সরল! বললেন, লুকিয়ে বিয়ের অন্যরকম মজা। পালিয়ে বিয়ে করে ওই মজাটা নিতে চেয়েছিলাম। আমার পরিবারের কেউ বিয়ের ব্যাপারটা জানে না।’

চলতি মাসের ১০ তারিখ রাজধানীর রাজারবাগ কাজি অফিসে বিয়ে করেছেন তিনি। স্বামী কামরুজ্জামান রনি ছোট পর্দার নির্মাতা। বর্তমানে তারা মোংলায় আছেন। সেখানে পরীমনি ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ছবির শুটিং এ আছেন। সেখান থেকেই বৃহস্পতিবার পরী-রনি বিয়ের খবর সবাইকে জানিয়েছেন।

অভিনেত্রী ও নির্মাতা হৃদি হকের ‘১৯৭১: সেই সব দিন’ ছবির সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন রনি। ছবিতে অভিনয় করছেন পরীমনি। সিনেমাটিতে কাজ করতে গিয়ে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া তৈরি হয় তাদের। একপর্যায়ে রনিই বিয়ের প্রস্তাব দেন পরীকে। মনে মনে রনির প্রতি দুর্বল পরী সেই প্রস্তাব এড়াতে পারেননি।

পরীমনি বলেন, ‘প্রায় পাঁচ মাস আগে ছবির গল্প শোনানোর জন্য হৃদি আপুসহ রনি এসেছিল আমাদের বাসায়। তখন আমি তাকে খেয়ালই করিনি। শুটিংয়ে গিয়ে কোথায় থাকব, কীভাবে যাব, সেসব নিয়ে তার সাথে প্রথম আলাপ শুরু হয়। এভাবেই একসময় আমাদের মধ্যে সখ্য গড়ে ওঠে। মার্চের ৩ থেকে ৭ তারিখ আমরা ঠাকুরগাঁওয়ে শুটিং করি। সেখানে ভীষণ আনন্দে সময় পার হয়ে যায়। ৮ মার্চ ঢাকায় এসে আমি তাকে খুব মিস করছিলাম। পরদিন ৯ মার্চ আমরা দেখা করি এবং সে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। আমার মন যেন কেমন করে ওঠে। ওই রাতেই আমরা বিয়ে করে ফেলি।’

রনি বলেন, ‘আমরা এখন একটা অন্য রকম সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। মোংলায় পরীর শুটিং সেটে আমরা সময় কাটাচ্ছি। নিজেদের একটু গুছিয়ে নিয়ে আমরা বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করব।’

Leave a Reply