ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের সদর উপজেলার খলিলপুর বাজারের সরকারি জমিতে অবৈধ প্রক্রিয়ায় দখল করে ভবন নির্মাণ করেছে সরোয়ার হোসেন সন্টুসহ তার কয়েক সহযোগিরা। তারা বাজারের মধ্যে মাছ বাজাররের দুটি সেড ভেঙ্গে মূল্যবান কয়েক শতাংশ জমি দখল করে এই ভবন নির্মাণ করেন।
বাজারের ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, গত ২০১৭ সালের দিকে সরোয়ার হোসেন সন্টু অবৈধ ভাবে প্রভাব খাটিয়ে মাছ বাজারের মধ্যে জায়গা দখল করেন। এরপর স্থানীয় প্রভাবশালী ওমর মোল্যাকে সাথে নিয়ে তিনি সেখানে একটি ভবন নির্মাণ করেন। সেই ভবনের একতলা কাজ শেষ করে ২০১৮ সালে ২৪টি দোকান আট থেকে দশ লাখ টাকা মূল্য বিক্রি করেন তারা।

বাজারের ব্যবসায়ীরা বলেন, সরকারী নিয়ম অনুযায়ী বাজারের সরকারী জমিতে কোন পাকা ভবন নির্মাণ করতে পারবে না কোন ব্যক্তি। কিন্তু এজন্য সন্টু শহরের এপিএস ফুয়াদ, বরকত ও রুবেল এর প্রভাব খাটিয়ে এই ভবন নির্মাণ করেছেন। যা সরকারী নিয়মের পরিপন্থি কাজ। আমরা বাজারের ভিতর এমন অবৈধ ভবনটির অপসারন চাই। তিনি তার ইচ্ছা মতো লোকদের কাছে অর্থ বেশি পেয়ে বিক্রি করেছেন। এই ২৪টি দোকান থেকে সন্টু ও তার সহযোগিরা দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে তারা জানান।

এ বিষয়ে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, হাট-বাজারের সরকারী জমিতে কোন ব্যক্তি পাকা ভবন নির্মাণ করতে পারবে না। যদি এমন কাজ হয়ে থাকে তাহলে অতি দ্রæত এ বিষয়ে প্রশাসন যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলেও জানান তিনি। #

Leave a Reply