রাজনৈতিক আর সামাজিক সমস্যার যেন শেষ নেই পাকিস্তানে। এবার পাকিস্তানের সব থেকে বড় সমস্যা প্রকাশ্যে এসেছে গবেষণার ফলাফলের সূত্র ধরে।

জানা গেছে, পাকিস্তানের অর্ধেক পরিবার দুই বেলার খাবার জোগাড় করতে পারছে না। যার জেরে সে দেশে বিপুল সংখ্যক শিশু অপুষ্টিজনিত রোগে আক্রান্ত। জানােগেছে, পাকিস্তানের ৪০ দশমিক দুই শতাংশ শিশু অপুষ্টিজনিত রোগে আক্রান্ত।

জাতীয় পুষ্টি গবেষণার ফলাফল থেকে জানা গেছে, পাকিস্তানের ৩৬ দশমিক দুই শতাংশ পরিবারে দুই বেলা অন্ন সংস্থানের নিশ্চয়তা নেই। ওই পরিবারগুলোর বেশিরভাগ সদস্যরা দু’বেলা পুষ্টিকর খাবার পান না।

পাকিস্তানের শিশুদের মধ্যে অপুষ্টিজনিত রোগ কতটা গুরুতর আকার নিয়েছে, সেই হিসেব পেতে সমীক্ষাটি করা হয়। একইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণও উদ্দেশ্য ছিল। সেই সমীক্ষা থেকে যে এমন ভয়ঙ্কর তথ্য উঠে আসবে, সেটা ভাবতেও পারেননি গবেষকরা।

পাকিস্তানের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত এত বড় সমীক্ষা করা হয়নি। সমীক্ষা থেকে জানা গেছে, পাক অধিকৃত কাশ্মীরে সমস্যাটা আরো ভয়ঙ্কর। পাকিস্তানে এক লাখ ১৫ হাজার ছয়শ পরিবারের ওপর এই সমীক্ষা করা হয়।

যার মধ্যে ৭৬ হাজার সাতশ ৪২ জন পাঁচ বছর বা তার থেকে কমবয়সী ও এক লাখ ৪৫ হাজার আটশ ৪৭ জন ১০ থেকে ১৯ বছর বয়সী। এই সব শিশুদের মূত্র ও রক্তের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়। তা থেকেই তাদের অপুষ্টিজনিত রোগ সম্পর্কে জানা গেছে। নারীদের মধ্যেও অপুষ্টিজনিত রোগের প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

Leave a Reply