বার্তা ডেক্সঃ খুলনার দাকোপের বানিশান্তা পতিতালয়ে জন্ম নেওয়া মেয়ে শিশুরা বংশ পরম্পরায় পতিতাবৃত্তিতে লিপ্ত হতো। আর ছেলে শিশুরা দালাল চক্রের ফাঁদে পড়ে অপরাধ কর্মে জড়িয়ে পড়তো। তবে এবার অসহায় এসব শিশুদের জন্য ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে খুলনা জেলা প্রশাসন।

পতিতাপল্লীতে জন্ম নেওয়া শিশুদের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি ও মায়েদের থেকে আলাদা রাখতে আবাসিক হোস্টেলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। মাঝেমধ্যে মায়েরা শিশুদের সাথে দেখা করতে পারবেন। কিন্তু এসব শিশুরা কখনোই পতিতাপল্লীতে যেতে পারবে না। পতিতালয়ের পরিবেশে বেড়ে ওঠা শিশুদের জীবনব্যবস্থা পরিবর্তন ও তাদেরকে সমাজের মূল ধারায় ফিরিয়ে আনতে এ উদ্যোগ গ্রহণের কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

রবিবার সকালে খুলনা জেলা প্রশাসনকক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘যৌনপল্লীর শিশুদেরকে আবাসিক শিক্ষা ও পনুর্বাসনের উদ্দেশে প্রাথমিক বিদ্যালয় সম্প্রসারণ ও হোস্টেল নির্মাণ’ কাজের উদ্বোধন করা হয়। এতে জুম অ্যাপের মাধ্যমে প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, এমপি।

জেলা প্রশাসক বলেন, এরই মধ্যে ৬৪টি শিশুকে প্রাথমিক স্কুলে ভর্তি ও আবাসন ব্যবস্থার আওতায় আনা হয়েছে। তাদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করে শিক্ষার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টির পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এতে খুশি তাদের বাবা-মায়েরাও। তারা তাদের সন্তানকে মানুষের মতো মানুষ করে গড়ে তুলতে এ পদক্ষেপ নেওয়ায় কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

Leave a Reply