দীপন হত্যা মামলায় মেজর জিয়াসহ ৮ জনের মৃত্যুদণ্ড

দীপন হত্যা মামলায় মেজর জিয়াসহ ৮ জনের মৃত্যুদণ্ড
Spread the love

প্রথমবার্তা২৪.কম ডেস্কঃ ব্লগার অভিজিৎ রায়ের বইয়ের প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ৮ জঙ্গির ফাঁসির আদেশ দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। এছাড়া প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমানের আদালত এ রায় প্রদান করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, মইনুল হাসান শামীম ওরফে সামির ওরফে ইমরান, আবদুর সবুর সামাদ ওরফে সুজন ওরফে রাজু ওরফে স্বাদ, খাইরুল ইসলাম ওরফে জামিল ওরফে জিসান, আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন ওরফে শাহরিয়ার, শেখ আবদুল্লাহ ওরফে জুবায়ের ওরফে জায়েদ ওরফে জাবেদ ওরফে আবু ওমায়ের ও আকরাম হোসেন ওরফে হাসিব ওরফে আবির ওরফে আদনান ওরফে আবদুল্লাহ।

২০১৯ সালের ১৩ অক্টোবর দীপন হত্যা মামলায় আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সামরিক শাখার প্রধান ও বরখাস্ত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক জিয়াসহ আট জঙ্গির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত।।

ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায় ও তার স্ত্রী নাফিজা আহমেদকে ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত সোয়া ৯টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পাশে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা।

আহত অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০টার মারা যান অভিজিৎ।

এর আটমাস পর ২০১৫ সালের ৩১ অক্টোবর শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের তৃতীয় তলায় নিজ কার্যালয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয় দীপনকে। দীপন ব্লগার অভিজিতের বইয়ের প্রকাশক ছিলেন।

দীপন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলার অধ্যাপক ও লেখক আবুল কাসেম ফজলুল হকের একমাত্র ছেলে।

Leave a Reply