জীবনযুদ্ধে হেরে গেল শিশু সুজিত

0
221
Spread the love

বছর চারেক আগে ঢাকার শাহজাহানপুরে ২৩৫ ফুট গভীর পরিত্যক্ত পাইপের মধ্যে পড়ে গিয়েছিল শিশু জিহাদ।সেই শিশুটি কথা নিশ্চই মনে আছে? প্রায় দুই দিন আটকা থাকার পর উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছিল চার বছরের শিশুটিকে। তবে জীবিত নয়, উঠে এসেছিল তার নিথর দেহটি।অনেকটা একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে এবার পাশের দেশ ভারতে।

গত শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) তামিলনাড়ুর তিরুচিরাপল্লির একটি সুগভীর পরিত্যক্ত কুয়ার মধ্যে পড়ে গিয়েছিল দুই বছর বয়সী সুজিত উইলসন। টানা তিনদিন প্রাণান্ত চেষ্টার পর উদ্ধার করা হয়েছে তাকে। তবে, জিহাদের মতোই করুণ পরিণতি হয়েছে তার। প্রাণ বাঁচানো সম্ভব হয়নি সুজিতেরও।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) ভোরে সুজিতের মরদেহ প্রায় পচে যাওয়া অবস্থায় তুলে আনা হয়েছে।

জানা যায়, গত শুক্রবার বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে খেলতে গভীর কুয়ায় পড়ে যায় সুজিত। সঙ্গে সঙ্গে বাচ্চাটির বাবা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। খবর যায় উদ্ধারকারী দলের কাছেও। সুগভীর গর্তটিতে না ছিল পানি, না খাবার। সেখানেই তিনদিন আটকে ছিল শিশুটি। তাকে বাঁচিয়ে রাখতে ভেতরে লাগাতার অক্সিজেন সরবরাহও করা হয়।

প্রথমে ২৬ ফুট নিচে আটকে থাকলেও উদ্ধারচেষ্টার সময় আরও গভীরে পড়ে যায় সুজিত। অন্তত ৮৮ ফুট নিচে আটকা পড়ে সে। কুয়ার পাশে আরেকটি গর্ত খুঁড়ে শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু, ১০ মিটার পরেই পাথরের স্তর থাকায় সে চেষ্টাও থমকে যায়। অবশেষে পড়ে যাওয়ার প্রায় ৮০ ঘণ্টা পর মঙ্গলবার ভোরে উদ্ধার করা হয় সুজিতের মরদেহ।

দীপাবলি ও শ্যামাপূজা উৎসবের মধ্যেই ভারতজুড়ে বিষাদের ছায়া ছড়িয়ে পড়ে সুজিতের আটকা পড়ার খবরে। মসজিদ, মন্দির, গীর্জায় বিশেষ প্রার্থনা করা হয় তার জন্য। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছিলেন তাকে নিয়ে। কিন্তু, ভাগ্য সহায় হলো না। তবে শেষ পর্যন্ত সব চেষ্টা ব্যর্থ করে জীবনযুদ্ধে হেরে গেল ছোট্ট শিশু সুজিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here