বহুল আলোচিত রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা মামলায় আট আসামির মধ্যে সাতজনের মৃত্যদণ্ড ও একজনের খালাস দিয়েছেন আদালত। ২৭ নভেম্বর দুপুরে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

জানা যায়, এজলাসে অবস্থানকালে ও আদালত থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৭ আসামির একজন রাকিবুল হাসান রিগানের মাথায় জঙ্গি সংগঠন আইএস’র টুপি দেখা গেছে। যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ইতোমধ্যে সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে। যেখানে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে, কিভাবে কারাবেষ্টনীর মধ্যে তার মাথায় এই টুপিটা এলো?

আসামি রাকিবুল হাসার রিগ্যান এজলাসে বসা অবস্থায় টুপি পড়া ছিলেন। তবে ওই টুপিতে আইএসের লোগো ছিল না। রায় ঘোষণার পর বের হওয়ার সময় তার মাথায় আইএসের টুপি দেখা যায়। প্রিজনভ্যানে ওঠার সময় ‘আল্লাহ হুআকবার’, ‘আল্লাহ হুআকবার’ বলে স্লোগান দেন। ‘এ রায় অন্যায়, এ রায় মানি না’ বলেও চিৎকার করেন।

এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী গোলাম সারোয়ার খান জাকির বলেন, ‘আসামিদের মাথায় আইএসের টুপি ছিল কি না তা আমি জানি না।’ ভিডিওতে একজন আসামির মাথায় আইএসের টুপি দেখা গেছে উল্লেখ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমিও অনলাইনে দেখেছি।’

আসামিপক্ষের আইনজীবী দোলোয়ার হোসেন বলেন, ‘আসামিদের মাথায় আইএসের টুপি কিভাবে আসছে সেটা আমার জানা নেই। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা এ বিষয়ে বলতে পারবেন।’

তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply