সদ্য ভুমিষ্ঠ্য প্রতিটি শিশুকে গাছ উপহার দেবার দৃঢ় প্রত্যয় গ্রহন করেছে গ্লোবাল কমিউনিটি অরগানাইজেশন (জিকো) আর তারই ধারাবাহিকতায় রাজশাহী জেলার চারঘাট উপজেলায় আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যক্রম শুরু করেছে সংস্থাটি। পারিবারিক উন্নয়ন এবং পরিবেশের ভারসম্য রক্ষায় সহায়ক ভূমিকা রাখবে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী।

গাছ রোপণের মাধ্যমে প্রতিটি শিশুর তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে প্রতিবন্ধী শিশুদের চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা এবং সুবিধা বঞ্চিত পরিবারের শিশুদের নিউট্রিশন নিশ্চিত করারও উদ্যোগ গ্রহণ করেছে এই সংস্থ্যাটি। আর এই কার্যক্রমকে প্রসারিত করতে ইউনিয়ন ভিত্তিক ভলান্টিয়ার ইউনিট এবং মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্কাউট ও রোভারদের মাধ্যমে গঠন করা হয়েছে ত্যাগী ভলান্টিয়ার ইউনিট, যাদের মাধ্যমে সদ্যভূমিষ্ঠ্য শিশুদের তথ্য সংগ্রহ ও গাছ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

 

রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ ও নাটোর জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ইতিমধ্যেই কার্যক্রম শুরু হয়েছে এবং ৩০০০ এর অধিক শিশুকে গাছ উপহার দেওয়া হয়েছে আর এই কার্যক্রমের মাধ্যমে বিশ্বের প্রতিটি নবজাতক শিশুকে গাছ উপহার দেওয়ার দৃঢ়তা ব্যক্ত কে উ” র সংস্থাটি।

রায়পুর উচ বিদ্যালয়ের হল রুমে ত্যাগী ভলান্টিয়ার নতুন ইউনিট গঠন এবং ৯০ জন নবজাতক শিশুর মাঝে গাছ বিতরণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মোঃ নুরুল ইসলাম, প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক বাকড়া উচ্চ বিদ্যালয়, সভাপতিত্ব করেছেন মোঃ তাজিমউদ্দিন খান, প্রাক্তন সহকারী প্রধানশিক্ষক, বাকড়া উচ্চ বিদ্যালয়, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাজদার রহমান, প্রধান শিক্ষক রায়পুর উচ্চ বিদ্যালয়, আমিনুল ইসলাম, প্রেসিডেন্ট, গ্লোবাল কমিউনিটি অরগানাইজেশন এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ত্যাগী ব্লাড ব্যাংকের সভাপতি মোঃ শাহীন রেজা, ত্যাগী ভলান্টিয়ার্স এর চিফ আফতাবুল আলম, প্রচার সম্পাদক মোঃ সাব্বির আরাফাত, গ্লোবাল কমিউনিটি অরগানাইজেশন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গ্লোবাল কমিউনিটি অরগানাইজেশন এর বিভিন্ন ইউনিটের ভলান্টিয়ার ও বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ত্যাগী ভলান্টিয়ার।

Leave a Reply