করোনা আতঙ্কে ফরিদপুরে দুই যৌনপল্লী লকডাউন

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে ফরিদপুর শহরের দুইটি যৌনপল্লী অনির্দিষ্টকালের জন্য লক-ডাউন ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন।

জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, ফরিদপুর সদর উপজেলার দুইটি যৌনপল্লীতে অতিরিক্ত লোকজনের যাতায়াত ছিল, এজন্য বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসক আরো জানান, শনিবার (২১ মার্চ) দুপুরে শহরের হাজী শরিয়তুল্লাহ বাজার সংলগ্ন রথখোলা যৌনপল্লী এবং ডিক্রিরচর ইউনিয়নের সিঅ্যান্ডবি ঘাট এলাকায় অবস্থিত যৌনপল্লী লক-ডাউন করার জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাসুম রেজাকে পাঠানো হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাসুম রেজা জানান, শহরের এ দুটি যৌনপল্লীতে জায়গা কম, ঘিঞ্জি পরিবেশ এবং বিভিন্ন জেলা থেকে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ যাতায়াত করে থাকেন। এতে সংক্রমণ ঝুঁকি থাকায় জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের পরামর্শে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এ দুই পল্লীতে প্রায় তিন শতাধিক যৌনকর্মী ছাড়াও বাড়িওয়ালা, মাসী ও অনেকের ছেলে-মেয়ে রয়েছে।

তিনি আরো জানান, মানবিক কারণে এ সময়ে যৌনকর্মীদের খাদ্য সহায়তা হিসেবে প্রাথমিক পর্যায়ে এক-দুইদিনের মধ্যে প্রত্যেক পরিবারকে ৩০ কেজি করে চাল দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এছাড়া বাড়িওয়ালাদেরকে বন্ধকালীন সময়ে যৌনকর্মীদের কাছ থেকে ঘর ভাড়া না নেয়ার নির্দেশও দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম জানান, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে পল্লী দুইটির প্রবেশ পথের মধ্যে পুলিশ পাহারা জোরদার করা হয়েছে।

Leave a Reply