মুহিব রহমান, শেখ শিউলি হাবিব ও আশনা হাবিব ভাবনা
মুহিব রহমান, শেখ শিউলি হাবিব ও আশনা হাবিব ভাবনা
করোনার কারণে বাড়িভাড়া মওকুফের প্রথম ঘোষণা দিয়েছিলেন শেখ শিউলি হাবিব। শনিবার দেশের বিভিন্ন গনমাধ্যমে বিষটি উঠে ‍আসলে একে একে ঢাকার বাড়িওয়ালারা ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দিতে থাকেন। অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা, মুহিব রহমানসহ আরো কয়েকজন বাড়ির মালিক অন্যদেরও উদ্বুদ্ধ করছেন।
শেখ শিউলি হাবিব ঢাকা শহরে তার বাড়িতে বসবাসরত ভাড়াটিয়াদের মার্চ মাসের ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন। মুহিব রহমান দুই মাসের ভাড়া মওকুফ করেছেন। অন্যদিকে অভিনেত্রী ভাবনা চলতি মাসের ভাড়া নেবেন না ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে।
শেখ শিউলী হাবিব এক ট্রাভেল এজেন্সির মালিক। তিনি বলেন, আমার ভাড়াটিয়ারা অনেকটা দিনমজুর। তারা দিন আনে দিন খায়। করোনার কারণে মানুষ সব ঘরবন্দি হয়ে যাচ্ছে, তাদের কাজও কমে গেছে। এখন তারা নিজেরা খাবে নাকি আমাকে বাসার ভাড়া দেবে? এসব ভেবেই আমি তাদের জন্য মার্চ মাসের ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছি।
ভাবনার বাবা ‘রাত্রীর যাত্রী’খ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব। এ বিষয়ে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন, করোনাভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করার কারণে বাংলাদেশের সবকিছুই স্থগিত হয়ে গেছে। কর্মজীবী মানুষ কর্মস্থলে যেতে পারছেন না, তাই আমি এ দেশের একজন ক্ষুদ্র নাগরিক হিসেবে আমার বাসার সব ভাড়াটিয়ার মার্চ মাসের ভাড়া মওকুফ করে দিলাম।
শনিবার মুহিব রহমান একটি নোটিশের ছবি সংযুক্ত করে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমাদের হাজারিবাগ বেড়িবাধ এলাকার বাসায়, যেখানে নিম্নবিত্তরা ভাড়া থাকেন তাদের জন্য আজকে কিছু করার চেষ্টা করলাম। আইডিয়াটা ইন্টারনেট থেকে পাওয়া। আমরা সবাই কি এ ধরনের শো অফ করতে পারি না? আমি এই বাড়ি ভাড়ার উপর নির্ভরশীল না বলেই এটা করতে পেরেছি। সবার কাছেই এটা আশা করা বোকামি। অনেকের সংসার চলেই বাড়ি ভাড়ার টাকায়।’
তারা তিনজনই আশাবাদী, তাদের দেখাদেখি দেশের সব বাড়িয়াওলার এই দুর্যোগের সময় ভাড়াটিয়াদের পাশে দাঁড়াবেন।

Leave a Reply